Tips & Tricks-টিপস & ট্রিকস

অনলাইন হতে ইনকাম (Online Income) করার সেরা ৫ টি উপায় !!!

 

গ্রাজুয়েশন শেষ করার আগে একজন স্টুডেন্ট এর পক্ষে চাকরি পাওয়াটা অনেক সময় দুঃসাধ্য হয়ে পড়ে। এক্ষেত্রে অনেকেইঅনলাইন হতে ইনকাম করাটাকেই তার জন্য সবচেয়ে সহজ উপায় মনে করে। একজন স্টুডেন্ট যখন অনলাইন হতে ইনকামকরার উপায়গুলি শিখে যায় তখন তাকে আর তার ফ্যামিলির থেকে টাকা নিতে হয় না।

বর্তমানে আমাদের দেশের লাখ লাখ মানুষ  অনলাইনে ইনকাম এর মাধ্যমে তাদের জীবিকা নির্বাহ করছে। অনলাইন হতেনানাভাবে ইনকাম করা যায়। যেমননিজের ব্লগে অন্যের ব্লগে লেখালেখি করার মাধ্যম,ইউটিউবিং করে, অ্যাফিলিয়েটমার্কেটিং এর কাজ শিখে, সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং করে, এছাড়াও ফ্রিল্যান্সিং করে খুব সহজেই অনলাইন হতে ইনকাম করাযায়।

আর এগুলো সবগুলোই হচ্ছে ডিজিটাল মার্কেটিং।

আর ডিজিটাল মার্কেটিং এর মাধ্যমে আপনি চাইলে ঘরে বসেই ২০ হাজার থেকে শুরু করে ৫০ হাজার টাকা বা তার চাইতেওবেশি টাকা ইনকাম করতে পারেন খুব সহজেই। এর জন্য খুব বেশি কিছুর দরকার নেই। দরকার শুধু একটি Android Mobile  আর প্রতিদিন তিন থেকে চার ঘণ্টা সময় বের করা।

মোবাইল দিয়ে অনলাইনে ইনকাম করার অনেক উপায় আছে। কিন্তু আমরা এই পোস্টে আপনাদেরকে কেবল ওই টি সহজউপায় সম্পর্কে বলবো যেগুলি আপনাকে সত্যি মোবাইল দিয়ে ইনকাম করার সুযোগ দেবে। তবে,উপায়গুলো ব্যবহার করে আপনিকত টাকা আয় করবেন সেটা আপনার কাজ আর পরিশ্রমের ওপরে নির্ভর করবে।

তবে তার আগে অনলাইন হতে টাকা উত্তোলনের উপায় জানুন:

অনলাইনের মাধ্যমে আপনি ঘরে বসে খুব সহজেই পৃথিবীর যেকোন প্রান্তের যে কোন দেশের যে কোনো কাজ করে দিতে পারেন।আপনার আয় করা টাকা উত্তোলন করার জন্য আপনি ব্যাংক এর সহায়তা নিতে পারেন। এছাড়াও পেপাল,পেওনিয়ার, ট্রানস্ফেরোয়াইজসহ আরও বিভিন্ন মাধ্যমে আপনার পেমেন্ট গ্রহন করতে পারেন। এগুলো ছাড়াও বিকাশ, রকেট,ডাচ বাংলা এরমাধ্যমে পেমেন্ট গ্রহণ করতে পারেন।

.ব্লগ থেকে বা ওয়েবসাইটের মাধ্যমে অনলাইন হতে আয়:

ব্লগ থেকে আপনি অনেকগুলা মাধ্যমে আয় করতে পারেন।যেমন: ব্লগ তৈরি করে সার্ভিস দেওয়া মাধ্যমে,নিজের ব্লগে এফিলিয়েটমার্কেটিং এর মাধ্যমে, ব্লগ পোস্টে ক্যাটাগরি অনুসারে বিভিন্ন স্পন্সর পোস্ট করে আয় করতে পারেন।

এছাড়াও, যদি আপনার স্কিল থাকে ওয়েবসাইটে অনলাইন কোর্স করিয়ে পাশাপাশি নিজের ওয়েবসাইটে বিভিন্ন পণ্য বেচাকেনারমাধ্যমে আয় করতে পারেন।

তবে এর জন্য আপনাকে অবশ্যই প্রথমে Google এর blogger. com ওয়েবসাইটে গিয়ে একটি ফ্রি ব্লগ বা ওয়েবসাইট বানিয়েনিতে হবে। এরপর আপনি নিজের ব্লগে ভালো ভালো আর্টিকেল লিখে ব্লগে ভিজিটর বা ট্রাফিক আনতে পারবেন।ট্রাফিক আশাশুরু হলে আপনিগুগল এডসেন্সেনিজের ব্লগটি register করে টাকা আয় করতে পারবেন। বর্তমান সময়ে  লোকজনব্লগএবং গুগল এডসেন্সএই দুটো সার্ভিস ব্যাবহার করে প্রচুর পরিমাণে ইনকাম করছে।

. ইউটিউবিং করে অনলাইন হতে আয়:

অনলাইন হতে আয় করার অন্যতম আরেকটি সহজ উপায় হচ্ছে ইউটিউবিং। ইন্টারনেট বিশ্বের সবচাইতে জনপ্রিয় ১০ওয়েবসাইটের মধ্যে YouTube হচ্ছে অন্যতম।আমাদের দেশে অনেক বড় বড় ইউটিউবার রয়েছে যাদের মাসিক ইনকাম প্রায় ৪০থেকে ৫০ লক্ষ টাকা। যদিও তারা এখন অনেক দামি দামি গেজেট ব্যবহার করে তবে তাদের অনেকেরই শুরুটা হয়েছিল মোবাইলদিয়ে ভিডিও করে।তাই আপনিও চাইলে মোবাইল দিয়ে ইউটিউব ভিডিও বানিয়ে ইনকাম করা শুরু করতে পারেন। এর জন্যআপনাকে প্রথমে ইউটিউবে একটা চ্যানেল খুলতে হবে।

এরপর আপনি মানুষের প্রয়োজনীয় বিষয় নিয়ে ভিডিও বানাতে পারেন তাহলে আপনার  চ্যানেলের 1000 সাবস্ক্রাইবার এবং4000 ঘন্টা ওয়াচ টাইম পূরণ করতে পারবেন। এরপর আপনি আপনার চ্যানেলে অ্যাড বসানোর জন্য আবেদন করে অ্যাডবসাতে পারেন। এবাবে,অ্যাড বসানোর মাধ্যমে অ্যাড হতে আপনি আয় করতে পারেন।

. ফ্রিলান্সিং (Freelancing) করে অনলাইনে হতে আয়:

বর্তমান সময়ে অনলাইনে আয়ের ক্ষেত্রে  ফ্রিল্যান্সিং একটি জনপ্রিয় প্লাটফর্ম। বাংলদেশের বেকারত্ব কমাতে ফ্রিলান্সিং খাতটিঅনেক বড় ভুমিকা পালন করছে।  ফ্রিল্যান্সিং করে বর্তমানে বাংলাদেশের হাজার হাজার লোক ঘরে বসে অনলাইনে সবচাইতেবেশি টাকা আয় করে সাবলম্বী হচ্ছে। পাশাপাশি ফ্রিল্যান্সাররা পৃথিবীর মানুষের কাছে বাংলাদেশকে তুলে ধরছে।

তাই আপনিও যদি ফ্রিলান্সিং যোগদান করে টাকা আয় করতে চানতাহলে আপনাকে গ্রাফিক্স ডিজাইনিং, ওয়েব ডিজাইনিং, ফটো এডিটিং, লোগো ডিজাইন , কপি রাইটিং ইত্যাদি এসবের যেকোনো একটি কাজে দক্ষতা অর্জন করতে হবে।

. গ্রাফিক্স ডিজাইন করে অনলাইন হতে আয়:

অনলাইনে গ্রাফিক্স ডিজাইনের প্রচুর পরিমানে demand রয়েছে।

ঘরে বসে আয়ের ক্ষেত্রে এটিও একটি ভালো উপায়। আপনি যদি গ্রাফিক্স ডিজাইনে দক্ষ হন তাহলে আপনি অনলাইনেমার্কেটপ্লেসগুলোতে জায়গা করে নিতে পারবেন। এখনকার সময়ে  ফ্রিল্যান্স মার্কেটে গ্রাফিক্স ডিজাইনের প্রচুর চাহিদা রয়েছে।

গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার জন্য আপনি প্রথমত এডোবি ফটোশপ দিয়ে শুরু করতে পারেন।

. এসইও(SEO)করে অনলাইন হতে ইনকাম:

বর্তমানে অনলাইনে মিলিয়নেরও বেশি ওয়েবসাইট রয়েছে।

প্রত্যেকেই তাদের ওয়েবসাইটকে গুগল সার্চের ১ম পাতায় নিয়ে আসার জন্য তারা তাদের সর্বোচ্চ চেষ্টা করছে। কিন্তু ওয়েবসাইটকেগুগল সার্চের ১ম পাতায় নিয়ে আসা কোনো সহজ কাজ নয়। জন্য সবাই এখন এসইও(SEO) করার জন্য এসইও এক্সপার্টদেরখোঁজ করছে। তাই এখন প্রতিনিয়ত এসইও এক্সপার্টদের চাহিদা বাড়ছে।

তাই আপনি যদি ভালোভাবে এসইও শিখতে পারেন তাহলে আপনি যেকোন কোম্পানির এসইও এক্সপার্ট হিসেবে কাজ করে মাসেলাখ টাকা ইনকাম করতে পারবেন। তাছাড়া আপনার যদি পার্সনাল কোনো ব্লগ থাকে আর আপনি যদি ভালোভাবে এসইওজানেন তাহলে ব্লগে ট্রাফিক বৃদ্ধি করে আপনিও অনলাইন হতে প্রচুর পরিমাণে আয় করতে পারবেন।

আমরা এখানে অনলাইন হতে আয় করার সেরা টি উপায়  আপনাদের সাথে শেয়ার করেছি। এখন সিদ্ধান্ত নেবার পালাআপনি কোন পদ্ধতিতে কাজ করতে চাচ্ছেন।

আপনার যদি ধৈর্য্য ইচ্ছা শক্তি থাকে তাহলে আপনি অল্পদিনের মধ্যেই অনলাইনে ইনকাম করতে সক্ষম হবেন।

তো,শুভ হোক আপনার অনলাইন যাত্রা। ধন্যবাদ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button