Others

আলেশা কার্ড কি? আলেশা কার্ডের সুবিদা|আলেশা কার্ডের মূল্য| Alesha card| আলেশা মার্ট সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন

অনেকেই হয়তোবা আলেশা কার্ড সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চাচ্ছেন।কিভাবে কার্ডটি পাওয়া যায়, এর সুবিদাগুলো কি হতে পারে, বিশ্ব সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের সাথে এর সম্পর্ক কি,আরও হাজারও নানান ধরনের প্রশ্ন। আজকে আমরা আলেশা কার্ড এর এ টু জেড বিষয়গুলো আপনাদের সামনে উপস্থাপন করবো।

  • আলেশা কার্ড কি?
  • আলেশা কার্ডের যাত্রা এবং লক্ষ্য কি?
  • আলেশা কার্ডের সুবিধা
  • আলেশা কার্ড কিভাবে পাবো/এর মূল্য কত?
  • আলেশা কার্ডের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর কে?
  • আলেশা কার্ডের অগ্রগতি
  • আলেশা মার্টের সেবাগুলো কি?

অনেকের মনে প্রশ্ন জাগতে পারে যে আলেশা কার্ডটা আসলে কি?
আলেশা কার্ড হচ্ছে ,একটি অনলাইন পেমেন্ট মাধ্যম। যার অন্য এক নাম বলা যেতে পারে প্রিভিলেজ কার্ড। যার অর্থ, বিশেষ সুবিধার সংজ্ঞাকে এ কার্ডের মাধ্যমে দেশকে এবং দেশের মানুষকে অন্য এক উচ্চতায় নিয়ে যেতে চায় আলেশা কার্ড। ইচ্ছেরা সব হাতের মুঠোয়’ স্লোগান নিয়েই বাজারে এসেছিল আলেশা কার্ড।

আলেশা কার্ড এটি জনগনের সুবিধার জন্যই আলেশা হোল্ডিং লিমিটেডের নতুন একটি উদ্যোগ। নিরবচ্ছিন্নভাবে বিভিন্ন উদ্যোগ নিচ্ছে আলেশা হোল্ডিংস লিমিটেড কোম্পানিটি। আজকের আলোচনায় আমরা জানবো তাদের উদ্যোগগুলো সম্পর্কে।দেশের মানুষের পাশে থাকতে চায় তারা। এর একটি অংশ হিসেবে “আলেশা কার্ড”এসেছে ।

আলেশা কার্ডের যাত্রা এবং লক্ষ্য:

বাংলাদেশে জন্মের ৫০ তম বার্ষিকীতে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে আলেশা কার্ডের যাত্রা শুরু হয়।
বাংলাদেশ একটি উন্নয়নশীল দেশ।এই উন্নয়নশীল দেশকে বিশ্বের বুকে নাম লেখাতে আরো উন্নত দেশ হতে এগিয়ে চলার লক্ষ্যে আলেশা হোল্ডিংস লিমিটেড এ কার্ড আনার উদ্যোগ নেয়। দেশের মানুষের জীবনকে আরও স্বাচ্ছন্দ্যময় ও স্বস্তিময় করতে এই উদ্যোগ নেওয়া হয় মুজিব বর্ষেই।

যে কোনো কিছু কেনাকাটা, হেলথ সার্ভিস, হোটেল, রেস্টুরেন্ট এবং রিসোর্ট সার্ভিসসহ দৈনন্দিন বিভিন্ন প্রয়োজনে মূল্যের ওপর বিশেষ ছাড় প্রদান করবে এই প্রতিষ্ঠানটি । এর মাধ্যমে কার্ড হোল্ডারদের জীবনটাকে আরো সহজতর করে তুলবে।

শুধু তাই নয়,বিশ্বের বুকে মাথা উঁচু করে বাঁচতে, দেশকে এগিয়ে নিতে যারা যুগ যুগ ধরে অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছে , সেই জনগণের জীবনকে আরও সহজ করে দিবে এই কার্ডটি।
আর তাই আলেশা হোল্ডিংস লিমিটেড বিশ্বাস করে, তাদের বিজনেস পার্টনারদের সঙ্গে কার্ড হোল্ডারদের এক চিরস্থায়ী সম্পর্ক গড়ে দেবে তাদের এই আলেশা কার্ডটি।

আলেশা কার্ডের সুবিধা:

১.আলেশা কার্ড একটি বিশেষ কার্ড। এই কার্ডটি দেশের ৩ হাজারেরও বেশি সরবরাহকারীরকে ৯০ টিরও বেশি ক্যাটাগরিতে ৫০% পর্যন্ত ছাড় দিচ্ছে।
২.আলেশা কার্ডের কার্ডধারীরা আলেশা মার্টের নির্দিষ্ট কিছু নির্বাচিত পণ্য কিনতে পারবেন ১০ শতাংশ ডিসকাউন্টে।

৩. তাছাড়াও, আলেশা রাইডস” নামে একটি নতুন পরি সেবা চালু হতে যাচ্ছে যেখানে আলেশা কার্ডের কার্ডধারীরা প্রতি রাইডে 10 শতাংশ ছাড় পাবে।
৪. আলেশা কার্ডের মেয়াদ থাকাকালে যদি কোনো কার্ডধারী(হোল্ডার) কোনো ধরনের দুর্ঘটনায় মৃত্যুবরণ করেন, তাহলে তাঁর পরিবারকে বয়স অনুযায়ী সর্বোচ্চ দুই লাখ টাকা প্রদান করা হবে।

৫. আলেশা হোল্ডিংস লিমিটেড-এর আসন্ন আরেকটি উদ্যোগ হচ্ছে ‘আলেশা ফার্মেসি’।যেখানে কার্ড টি ব্যবহার করে সেখান থেকে ৫ শতাংশ ডিসকাউন্টে ওষুধ ক্রয় করতে পারবেন কার্ড হোল্ডাররা।

৬. শুধু তাই নয়, কার্ড হোল্ডাররা আরও পাবেন আন্তর্জাতিক মানের সুযোগ সুবিদা। যার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে অ্যাম্বুলেন্স সেবা, যেখানে থাকবে হাসপাতালে আসার আগ পর্যন্ত আইপি ক্যামেরার মাধ্যমে চিকিৎসকের সরাসরি পর্যবেক্ষণ সুবিধা।

আলেশা কার্ড কিভাবে পাবো/এর মূল্য কত?

অনেকের মনে হতোবা প্রশ্নটি ঘুরপাক করছে যে কার্ডটি কিভাবে পাওয়া যেতে পারে;এক বছর মেয়াদী কার্ডটির বিক্রয় মূল্য ৭ হাজার ৯৮০ টাকা। প্রতি বছর ৯৮০ টাকা দিয়ে কার্ডটি নবায়ন করা যাবে।
তবে, দেশের সূর্যসন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধা ও বীরাঙ্গনাগণ কার্ডটি পাচ্ছেন একদম ফ্রিতে ।৬৫ বছরের বেশি বয়সী বাংলাদেশী নাগরিকরা ৫০ শতাংশ পর্যন্ত ডিসকাউন্টে কার্ডটি নিতে পারবেন।

আলেশা কার্ডের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর কে?

 

91FAE326 0957 45A7 84B2 B52C73C008DF
আলেশা কার্ডের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে নিযুক্ত আছেন সাকিব আল হাসান

আলেশা কার্ডের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে নিযুক্ত আছেন বিশ্ব সেরা অরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।
ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হচ্ছে এমন একজন ব্যক্তি যার একটা ইতিবাচক ব্যক্তিত্ব রয়েছে।যিনি তার ইচ্ছানুযায়ী একটা প্রতিষ্ঠানের অভ্যন্তরীণ বা বাহ্যিক প্রতিনিধি হিসেবে নিযুক্ত হন, যার কাজ হচ্ছে নিযুক্ত হওয়া প্রতিষ্ঠানের পণ্য বা সেবার প্রচার ও প্রসারে ভূমিকা রাখা।
বর্তমান সময়ে তিনিই একমাত্র ক্রিকেটার, যিনি অর্জন করেছেন ১৫০০-এর অধিক রান ও ১০০ উইকেটের মাইলফলক। একের পর এক নিজের ইচ্ছেগুলো হাতের মুঠোয় নিয়ে চলেছেন সাকিব আল হাসান।
১০ আগস্ট আলেশা হোল্ডিংস লিমিটেড-এর অন্যতম এ সেবার সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হন বাংলাদেশের অন্যতম এই ক্রিকেটার।

আলেশা কার্ড লিমিটেড-এর হেড অব কার্ড সোহরাব হোসেন বলেছেন, ক্রিকেটের পরাশক্তি হিসেবে এতদিন যাকে চেনা হতো। সেই অস্ট্রেলিয়াকে সম্প্রতি টি-টোয়েন্টি হোম সিরিজে বিধ্বস্ত করার অন্যতম নায়ক বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে পেয়ে আলেশা কার্ড লিমিটেড’ পরিবার উচ্ছসিত ও আনন্দিত।

 

আলেশা কার্ডের অগ্রগতিঃ

2021 এর আগস্টে বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার পাঁচ ম্যাচের আন্তর্জাতিক টি২০ সিরিজ অনুষ্ঠিত হয়েছিল যেখানে সিরিজের প্রধান পৃষ্ঠপোষক হিসেবে ছিল আলেশা হোল্ডিংস লিমিটেডের অঙ্গপ্রতিষ্ঠান আলেশা কার্ড।

আলেশা হোল্ডিংস লিমিটেড আশা প্রকাশ করছে যে,প্রতিষ্ঠানটির অন্যান্য উদ্যোগ যেভাবে জনমনে সফলতার সঙ্গে জায়গা করে নিতে পেরেছে, ঠিক সেভাবেই আলেশা কার্ডও তার গ্রাহকদের মনমতো সেবা দিয়ে তাদের মনে জায়গা করে নেবে।

আলেশা মার্টের সেবাগুলো:

 

68410261 AAE8 435D BD78 041FA6EB6D0F
আলেশা হোল্ডিংসে এর একটি অন্যতম অঙ্গসংস্থা আলেশা মার্ট

আলেশা মার্ট হচ্ছে বাংলাদেশের অন্যতম ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান আলেশা হোল্ডিংসে এর একটি অঙ্গসংস্থা।

বর্তমানে দেশের ক্রমবর্ধমান ই-কমার্স ইন্ডাস্ট্রিতে ক্রেতাদের সহজ এবং ঝামেলাবিহীন অনলাইন কেনাকাটা করার জন্য এবং খুব কম সময়ে পণ্য ক্রেতাদের কাছে পৌঁছানো নিশ্চিত করার লক্ষ্যে বিপুল পরিমাণ মানসম্মত পণ্যসম্ভার নিয়ে আলেশা মার্ট এখন থেকেই সেবা দিয়ে যাবে।
আলেশা মার্ট যে সকল ক্ষেত্রে সেবা দিয়ে থাকবে:
> মানসম্মত পণ্যের সমাহার;
> দ্রুত ডেলিভারি প্রধান;
>দ্রুত মেডিসিন ডেলিভারি সেবা প্রদান;
> ডিসকাউন্ট;
> আকর্ষণীয় প্যাকেজ;
> বাকিতে পণ্য কেনার সুবিধা;
> ফ্রিল্যান্সারদের কাজের জন্য বিশেষ সুযোগ;
> ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের উৎপাদিত পণ্য রপ্তানি করার সুযোগ সুবিধা;

শেষকথা, আমরা আশা করি আলেশা কার্ডের সুযোগ সুবিধা দেশের সর্বস্তরের মানুষের কাছে পৌছে যাবে। মানুষ এর থেকে উপকৃত হবে। আর এই কার্ড বিশ্বের দরবারে বাংলাদেশকে এবং এই দেশের জনগনকে উপস্থাপন করবে নতুন আঙ্গিকে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button