টিপস & ট্রিকস

রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম ও একাউন্ট দেখার / চেক করার কোডসহ বিস্তারিত জানুন

রকেট হচ্ছে ব্যাংক শাখাবিহীন বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় মোবাইল ব্যাংকিং সেবা।অনেকেই ভালোভাবে জানে না কিভাবে রকেট একাউন্ট খুলতে হয়। আপনার যদি আগ্রহ থাকে চিন্তার কোনো কারণ নেই। যারা রকেট অ্যাকাউন্ট খোলার নিয়ম- কানুন, রকেট একাউন্টের সুযোগ- সুবিদা ও একাউন্ট দেখার কোডসহ আরও নানান বিষয়ে বিস্তারিত জানতে চান তারা আর দেরি না করে এখনি জেনে নিন:

প্রথমত বলে রাখি আপনি খুব সহজে ৩ টি উপায়ে রকেট একাউন্ট খুলতে পারবেন।

১. ঘরে বসে অথবা যে কোনো স্থান হতে *322# ডায়াল করে রকেট একাউন্ট খুলতে পারবেন।

২.রকেট এজেন্ট পয়েন্ট বা কাস্টমার সার্ভিস অফিস থেকে রকেট একাউন্ট খুলতে পারবেন।এতে কিছুটা ঝামেলা রয়েছে। তবে সমস্যা নেই।আপনি যদি আজকের এই আর্টিকেলটি সম্পূর্ণ পড়েন তাহলে এই সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে খুব সহজেই রকেট একাউন্ট খুলতে পারবেন।

৩. রকেট অ্যাপস দিয়ে সহজেই রকেট একাউন্ট খুলতে পারবেন এটিও চাইলে ঘরে বসে করতে পারেন।

চলুন তাহলে কিভাবে *322# ডায়াল করে বা রকেট অ্যাপস এর মাধ্যমে অথবা রকেট এজেন্ট পয়েন্ট এর মাধ্যমে কিভাবে রকেট অ্যাকাউন্ট খোলা যায় তা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা যাক।

আরও জানুন:ফেসবুক আইডি ডিজেবল কেন হয় ও ডিজেবল হলে করণীয়

১. *322# ডায়াল করে রকেট একাউন্ট খুলুন সহজে:

প্রথমত আপনাকে আপনার মোবাইলের ডায়াল বাটনে যেতে হবে।
ডায়েল বাটনে *322# ডায়াল করুন। এরপর একটি অপশন আসবে যেখানে আপনাকে 1 দিয়ে রিপ্লাই দিয়ে ওকে করতে হবে।
আবার আরেকটি খালি ঘর আসবে যেখানে আপনাকে রিপ্লাই দিতে হবে।রিপ্লাই দেওয়ার খালি ঘরে আপনি আপনার ইচ্ছামতো চার সংখ্যার গোপন পিন দিয়ে দিবেন। এরপর ok করলেই প্রি-রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন অটোমেটিক হয়ে যাবে। পরবর্তীতে আপনার একাউন্ট এর নাম্বারটি এবং একাউন্ট সম্পর্কিত তথ্য (চেক ডিজিটসহ) আপনাকে এসএমএস এর মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে। এইটুকু করলে আপনার রকেট একাউন্ট খোলার প্রথম পর্যায়
সমাপ্ত হবে।

২. রকেট এজেন্ট পয়েন্ট বা কাস্টমার সার্ভিস অফিস থেকে:

আপনার প্রথম ধাপ সম্পূর্ণ হয়ে গেলে এরপর আপনাকে এজেন্ট পয়েন্ট বা কাস্টমার সার্ভিস এর সাথে যোগাযোগ করতে হবে। তবে
এর জন্য যেসকল কাগজপত্রসহ প্রয়োজন হবে:-

প্রথমত,পাসপোর্ট সাইজের এক (০১) কপি ছবি প্রয়োজন হবে।
দ্বিতীয়ত, জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি প্রয়োজন হবে।
তৃতীয়ত, রকেট এজেন্ট পয়েন্টে যাওয়ার পর আপনাকে অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য একটি ফর্ম বা KYC দেয়া হবে।
ফর্ম পূরণ করার পর আপনাকে বৃদ্ধাঙ্গুলির ছাপ ও স্বাক্ষর জমা দিতে হবে।
তারপর আপনাকে তিন থেকে পাঁচ দিনের মধ্যে আপনার রকেট একাউন্ট সচল হয়েছে কিনা তা SMS এর মাধ্যমে জানতে পারবেন।

৩. রকেট অ্যাপস এর মাধ্যমে:

অ্যাপস দিয়ে রকেট একাউন্ট খোলা খুবই সহজ। আপনি চাইলে ঘরে বসেই অ্যাপস ব্যাবহার করে রকেট অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন। এরজন্য আপনাকে কোনো ফরম পূরন করতে হবে না।তবে আপনার একটি ভালো স্মার্টফোন অবশ্যই থাকতে হবে।
আপনার ফোন আইওএস (iOS) বা অ্যান্ড্রয়েড (Android) যেটাই হোক না কেন আপনি রকেট অ্যাপস ইনস্টল করতে পারবেন।

প্রথমে গুগল প্লে স্টোর (play store)বা অ্যাপ স্টোর (App store) থেকে রকেট অ্যাপ ইন্সটল করুন। এরপর ভাষা সিলেক্ট করুন।
আপনি যদি বাংলা জানেন তাহলে বাংলা সিলেক্ট করুন আর যদি ইংরেজি জানেন ইংরেজি সিলেক্ট করুন।তারপর আপনার মোবাইলের নম্বর দিয়ে পরবর্তী (Next) বাটনে ক্লিক করুন। এরপর আপনাকে একটি কল এর মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে রকেটে আপনার একটি অ্যাকাউন্ট খুলা হচ্ছে।
তারপর চার সংখ্যার পিন কোড দিতে বলা হবে আপনি যদি না চান তাহলে কলটি কেটে দিতে পারেন।

পরবর্তীতে, আপনার মোবাইল নম্বরে এসএমএস (SMS) এর মাধ্যমে ৬ ডিজিটের একটি Security কোড পাঠানো হবে। কোডের জায়গায় Security কোডটি লিখে যাচাই করে পরবর্তী বাটনটি ক্লিক করুন।রকেট অ্যাপসে লগইন করা হয়ে গেলে ক্যামেরা বাটনে আপনার আপনার পরিচয়পত্রের কার্ডের উভয় পাশের ছবি দিবেন। তারপর NEXT বাটনে ক্লিক করুন।
এরপর আপনার মোবাইলে সকল তথ্য সঠিক আছে কিনা যাচাই করে ok বাটনে ক্লিক করুন।

পরবর্তীতে, আপনার রেজিস্ট্রেশন কনফার্ম/নিশ্চিত করার জন্য রকেট আপনাকে একটি কনফার্মেশন SMS পাঠাবে। যদি SMS টি আপনার মোবাইল আসে তাহলে বুঝতে পারবেন আপনার একাউন্ট খোলা সম্পর্ণ হয়েছে।

আরও জানুন : অনলাইন হতে ইনকাম করার সেরা ৫ টি উপায়

একাউন্ট দেখার কোড / ব্যালেন্স চেক:

আপনি যদি আপনার রকেট একাউন্ট এর ব্যালেন্স চেক করতে চান তাহলে আপনার ফোনের ডায়াল প্যাডে *322# ডায়াল করুন। তারপর খালি ঘরে 5 দিন। এরপর আপনার রকেট একাউন্ট এর 4 ডিজিট এর পিন দিয়ে আপনি আপনার রকেট একাউন্ট এর টাকার পরিমাণ দেখতে পারবেন।

রকেট একাউন্ট এর সুবিধা:

  • বাহিরের যেকোন দেশ হতে খুব সহজেই টাকা লেনদেন করতে পারবেন।
  • টাকা ডিপোজিট এর মাধ্যমে নিরাপদে টাকা জমা করতে পারবেন।
  • যে কোনো মুহূর্তে মোবাইলে টাকা রিচার্জ করতে পারবেন।
  • বেতন কিংবা যে কোন ভাতা প্রদান করতে পারবেন কোনো ঝামেলা ছাড়াই।
  • ডিজিটাল প্রকৃত অনলাইন ব্যাংকিং সেবা পাবেন।
  • বিদ্যুৎ, গ্যাসসহ অসংখ্য ক্ষেত্রে বিল পেমেন্ট করতে পারবেন।

রকেট একাউন্ট হেল্প লাইন নাম্বার / রকেট এর কাস্টমার সার্ভিস নাম্বার:

আপনার রকেট একাউন্ট নিয়ে যদি কোনো সমস্যা হয় বা একাউন্ট সম্পর্কিত যে কোনো রকমের তথ্য জানতে চান তাহলে রকেট হেল্পলাইন 16216 এই নাম্বারে যোগাযোগ করুন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button