বই রিভিউ

bigganider kando karkhana 3 pdf | বিজ্ঞানীদের কাণ্ডকারখানা ৩ by রাগিব হাসান

বইয়ের নাম

বিজ্ঞানীদের কাণ্ডকারখানা

লেখক

রাগিব হাসান

প্রকাশনী

আদর্শ

পেজ

১২৮

দেশ

বাংলাদেশ

Edition

1st Published , 2020

ভাষা

বাংলা

বিজ্ঞানীদের কাণ্ডকারখানাবইটি সম্পর্কে কিছু কথা : আগের দুই খণ্ড প্রকাশিত হবার পরে ব্যাপক সাড়া পেয়েছে  আগামীপ্রজন্মের কাছ থেকে তাই এবারে বিজ্ঞানীদের কাণ্ডকারখানা আরো ১৫ টি গল্প এই গল্পগুলো আসলে বিশ্বের চেহারাপাল্টে দেয়া সব আবিষ্কার তার সাথে জড়িত বিজ্ঞানীদেরই গল্প

বিজ্ঞানীদের কাণ্ডকারখানা এর মধ্যে যে যে বিষয় গুলো আলোচনা করা হয়েছে:

  • নোবেলের স্বপ্ন
  • মেন্ডেলের মটরশুটি
  • গণিতের রাজাপল আরডিশ
  • শ্রোডিংগারের বিড়াল
  • প্রফেসর গড়ার্ডের স্বপ্নের রকেট
  • আকাশছোঁয়া ফজলুর
  • সালামের মহাবিশ্ব
  • কৌতূহলী দ্য মেস্ট্রাল তার কুর সেই কাঁটাময় আবিষ্কার
  • আইনস্টাইনের কম্পাস
  • পিথাগোরাসশুদ্ধ গণিতের পূজারী
  • রাধানাথের আঁকজোক
  • কাসিমিরের কবুতর
  • লাজুক উদ্ভাবক , সাহসী বউ : জার্নি বাই কার ১৮৮৮
  • অন্ধজনে দেহ আলোব্রেইলের লিপি
  • হেডি লামার বিশ্বসুন্দরী চিত্রনায়িকা যখন উদ্ভাবক
  • জীবনকণিকা

নোবেলের স্বপ্ন

আলফ্রেড নোবেল বর্তমান বিশ্বে বিজ্ঞানীদের জন্য সবচেয়ে সম্মানের পুরস্কার হলো। নোবেল পুরস্কার পদার্থ , রসায়ন চিকিৎসাবিজ্ঞান ছাড়াও শান্তি , সাহিত্য অর্থনীতিতে দেওয়া হয় নোবেল কিন্তু এই পুরস্কারের বিজ্ঞানীদের কাণ্ডকারখানা

নামটা এল কোথা থেকে ? সবকিছুর মূলে আসলে আছে একটি দুর্ঘটনা , একটি বিস্ফোরণ এবং একতাল কাদামাটি কীভাবে ? জানতে হলে আমাদের ফিরে যেতে হবে ১৮৬৪ সালে পলকা বিস্ফোরক আর একটি দুর্ঘ না নােবেল পুরস্কারের প্রবর্তক হলেনসুইডিশ বিজ্ঞানী প্রকৌশলী আলফ্রেড নোবেল জন্ম ১৮৩৩ সালে বাবার ছিল অস্ত্রের কারখানা কিন্তু ব্যবসায় মন্দাযাওয়ায় সেটা লাটে ওঠে ভাবলেন , বিস্ফোরকের ব্যবসায় নামা যেতে পারে এহেন বিস্ফোরক যে কেবল যুদ্ধে ব্যবহৃত হয় তানয় , পাহাড় কেটে রাস্তা বানানোসহ আরও অনেক শান্তিপূর্ণ কাজে বিস্ফোরকের দরকার হয়

অনেক দিন ধরে একমাত্র বিস্ফোরক ছিল বারুদ বা গানপাউডার কিন্তু তার শক্তি খুব বেশি নয় ১৮৪৬ সালে ইতালীয়রসায়নবিদ সোব্রেরো আবিষ্কার করেন প্রচণ্ড শক্তিশালী এক বিস্ফোরক তরল নাইট্রোগ্লিসারিন সেটা বানানো হতো গ্লিসারিনেরমধ্যে নাইট্রিক অ্যাসিড ঢেলে বিস্ফোরক হিসেবে এর শক্তি ছিল বারুদের চেয়ে অনেক বেশি তবে সমস্যাটা অন্য জায়গায় , নাইট্রোগ্লিসারিন ছিল খুব অস্থিতিশীল তরল একটা মাছি উড়ে গিয়ে এর মধ্যে পড়লেও বিস্ফোরিত হয় অথবা একচিলতেসূর্যের আলোর তাপেও এটা বিস্ফোরিত হতে পারে

ফলে এটা ব্যবহার করতে গিয়ে দুর্ঘটনা ঘটা ছিল নিত্তনৈমিত্তিক ব্যাপার ১৮৬২ সালে নোবেল নাইট্রোগ্লিসারিন বানানেরকারখানা খুললেন কী করে নাইট্রোগ্লিসারিনের অস্থিতিশীল অবস্থাটা ঠিক করা যায় যাতে করে দুর্ঘটনাবশত বিস্ফোরণ না ঘটে, তা নিয়ে নোবেল গবেষণা করতে লাগলেন কিন্তু বিধি বাম ভাগ্যের নির্মম পরিহাসে তার ল্যাবে নাইট্রোগ্লিসারিনের পাত্রেহঠাৎ বিকট বিস্ফোরণ ঘটল মারা গেল পাঁচজন তাদের মধ্যে নোবেলের ছোট ভাই এমিলও ছিল ভাইয়ের শোকে মুষড়েপড়লেন নোবেল কাজ বন্ধ থাকল কিছুদিন তার পর কীভাবে নিরাপদ করা যায় এই

নাইট্রোগ্লিসারিনকে , তার উপর নতুন প্রত্যয়ে গবেষণা করতে লাগলেন সৌভাগ্যময় দুর্ঘ না নোবেলের ভাগ্যটা পাল্টে গেলআরেকটি দুর্ঘটনায়

একদিন ল্যাবে 1 কাজ করার সময় হাত ফসকে এক বোতল নাইট্রোগ্লিসারিন পুরোটা পড়ে গেল ল্যাবের মেঝেতে আঁতকেউঠলেন নোবেল লাফ দিয়ে লুকালেন নিরাপদ দূরত্বে ভালো করেই জানেন , কতটা মারাত্মক এই বিস্ফোরক তরল কিন্তু কী ! কোনো বিস্ফোরণ তো ঘটল ! দুরুদুরু বুকে তাকিয়ে দেখলেন , ল্যাবের মেঝেতে পড়ে থাকা একরকমের আঠালো বালি শুষেনিয়েছে নাইট্রোগ্লিসারিনের রোটা তরল ফলে নাইট্রোগ্লিসারিন আর বিস্ফোরিত হয়নি

তো, ল্যাবের মেঝেতে এই বালি এল কোথা থেকে ? ভালো করে খয়াল করে দেখলেন নোবেল আরে , এটা তো কাইজেলগুড়নামের বালিমাটির দলা কয় দিন আগে বাক্সে করে নাইট্রোগ্লিসারিনের বোতল আনা হয়েছিল ল্যাবে , সেই বাক্সের ভেতরেবোতলগুলো তে নড়াচড়া কম করে সে জন্য এই বালি দেওয়া হয়েছিল বোতল বের করার সময়ে মেঝেতে পড়ে গেছে ঝাড়দারকয় দিন না আসায় সাফ করা হয়নি মেঝে নোবেলের চোখ চকচক করে উঠল নাইট্রোগ্লিসারিন তরল অবস্থায় খুবইবিপজ্জনক , সহজেই বিস্ফোরিত হয় তাই পরিবহন করা বা কোথাও গুদামে খাটা খুব বিপ নক

কিন্তু এই বালিমাটিতে শুষে যাওয়ার পরে এটা একেবারে নির্বিষ হয়ে যায় যেন হাত থেকে মেঝেতে পড়ে গেলেও এই বালিমাটিতেশুষে যাওয়া নাইট্রোগ্লিসারিনের কিছু হয় না কিন্তু আবার বিস্ফোরণের ক্ষমতা লোপও পায় না আগুন ধরালে বা ডেটোনেটরদিয়ে বিস্ফোরণের সূত্রপ করলে ঠিকই বিস্ফোরণ ঘটে নোবেল নানা রকমের পরীক্ষানিরীক্ষা করে বুঝে গেলেন , কীঅনুপাতে নাইট্রোগ্লিসারিন আর বালিমাটি মেশালে সেটা নিরাপদ কঠিন বিস্ফোরকে পরিণত হবে আর নাম দিলেনডায়নামাইট ( Dynamite )

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button