Sports Guide

মোটরসাইকেলের তেল খরচ কমানোর উপায়

প্রত্যেক বাইকারের মোটরসাইকেল তেল বেশি খাওয়ার কারন জানা উচিত যাতে করে বাইকের তেল খরচ বাচানো যায়। সাধারণত সবাই ১৫০ সিসি তেল সাশ্রয়ী মোটরসাইকেল পছন্দ করে। নিচে  ফুয়েল খরচ কমানোর উপায় দেওয়া হল:

তেল খরচ বাচাতে ড্রাইভ চেইন

1. চেইন অতিরিক্ত টাইট বা ঢিলা রাখা যাবে না
2. নির্দিষ্ট সময় পরপর পরিষ্কার এবং লুব্রিকেন্ট করতে হবে,
3. চেইনের স্থায়িত্ব বাড়াতে সঠিকভাবে এডজাস্ট করুন,

তেল খরচ বাচাতে টায়ার প্রেসার

  • 1. টায়ারে হাওয়ার পরিমাণ কম বা বেশি রাখা যাবে না,
  • 2. টায়ারের বিট ক্ষয়/ফাটা থাকলে পরিবর্তন করতে হবে,
  • 3. নির্দিষ্ট পরিমাণে টায়ারের প্রেসার ঠিক রাখুন,
  • ওভারলোডিং অবস্থায় বাইক চালানো
  • 1. অতিরিক্ত লোড নিয়ে বাইক চালাবেন না,
  • 2. ঝুঁকিপূণ অবস্থায় অতিরিক্ত মালামাল পরিবহন করা যাবে না,

তেল খরচ বাচাতে ঘনঘন ইঞ্জিন চালু বা বন্ধ:

(মোটরসাইকেল কোন গিয়ারে কত গতি রাখবে তা জানুন)
1. ইঞ্জিন ঘনঘন চালু এবং বন্ধ করবেন না,
2. 2-3 মিনিট জ্যামে দাঁড়িয়ে থাকলে ইঞ্জিন বন্ধ করুন,
আর কিছু থাকলে বলতে পারেন , নিজেও জানি অন্যকেও জানাই।

কমেন্ট থেকে—>
Shimahin Pranto : এয়ার ফিল্টার পরিবর্তন বা পরিষ্কার করা,
Oronno Shohag : ইকোনমি স্পিডে চালান।
Muhammad Jowel Miah Båbü : ইঞ্জিনের রেঞ্জটা এডজাস্ট করে নেওয়া,
Subroto Sarkar : ঘনঘন এক্সেলারেশন করা যাবে না। স্পিড আপ ও গিয়ার শিফটিং করতে হবে ধৈর্য্য নিয়ে। এক কথায় রাফ ড্রাইভিং করা যাবে না।

বাইকে তেল বেশি খায় কেন জানুন

Ahsan Sagor :
১. চাকার এলায়েনমেন্ট ঠিক থাকতে হবে।
২. ট্যাপেট ফিলার গজ দিয়ে নির্দিষ্ট মাপে এডজাস্ট রাখতে হবে।
৩. কার্বুরেটরের বাইকে চোক ক্যাবল ৬ মাস পর পর নারিকেল তেল দিয়ে লুব করতে হবে।
৪. প্লাগ ও এয়ার ফিল্টার প্রত্যেকবার ইঞ্জিন অয়েল চেইঞ্জ করার সময় ক্লিন করতে হবে।
৫. ভালো ফুয়েল ইউস করতে হবে।
৬. কার্বুরেটরের টিউন প্যাঁচ অতিরিক্ত বাড়িয়ে বা কমিয়ে রাখা যাবেনা।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button